একটেল থেকে রবি: একটি প্রতারণার গল্প

আমি একটেল (এখন রবি) ব্যবহার করি ২০০০ সাল থেকে। সেই সময় বড়সড় একটা ফোন ছিল। মোবাইল ফোনে তখন ইন্টারনেট ছিল না। ছিল না পলিফোনিক রিংটোন। মোবাইল মানেই ছিল সিমেন্স, মটোরোলা এবং পরে নকিয়া। এই প্রায় ১৪ বছর আগের স্মৃতি হাতড়াতে গিয়ে নস্টালজিক হয়ে গেলাম। তবে এই লেখার উদ্দেশ্য স্মৃতি হাতড়ান নয়। অনেক বিরক্তি নিয়ে আজকের আয়োজন।

আমি কখনো রবিতে ইন্টারনেট ব্যবহার করি নি। গ্রামীনফোনের ইন্টারনেট ব্যবহার করতাম (কাভারেজ ভালো)। শুধুমাত্র ঢাকার বাইরে গেলে এই ইন্টারনেট প্রয়োজন হয়। বাসায় বা অফিসে ডেডিকেটেড কানেকশন। তাই মোবাইলের ১/২ এমবিপিএস’র দরকার হয় না।

আমি প্রথম বারের মতন রবিতে ইন্টারনেট এক্টিভেট করলাম গতমাসে। পরীক্ষামূলক ভাবে ৫০০মেগাবাইট ডাটা কিনে নিলাম। এবং কয়েকদিন পর খেয়াল করলাম আমার একাউন্ট থেকে টাকা কমে যাচ্ছে। বাধ্য হয়ে ওদের হেল্পলাইন ১২৩ এ ডায়াল করলাম। এবং অপারেটর জানালেন আমার প্যাকেজটা শুধুমাত্র রাত্রের জন্য। আমি অবাক হলাম। কারন সার্ভিসটি এক্টিভেট করেছিলাম *৮৪৪৪# পুশ সার্ভিস থেকে। এবং সেখানে একবারও বলা হয়নি যে প্যাকেজটি ছিল রাতের! সম্ভবত প্যাকেজটির দাম ছিল ৫০ টাকা। তাই মাফ করে দিলাম। এবং ২ গিগাবাইটের নতুন একটি প্যাকেজ কিনলাম। ভালোই চলল। রবি’র থ্রিজি বেশ ভালো।

গত কয়েকদিন আবারো লক্ষ্য করলাম আমার একাউন্ট থেকে প্রায় ৪০০ টাকা হাওয়া। কারন বুঝতে ১২৩ এ ডায়াল করলাম। এবার আরো চমকপ্রদ তথ্য। আমাকে জানানো হলো এই প্যাকেজটি ১+১ জিবি’র। মানে হলো দিনের বেলা ১জিবি এবং রাতে বেলা ১ জিবি। আমি প্রচণ্ড রেগে গেলাম। এই রকম অভিনব বিষয় আমার পরিচিত নয়। তার উপর আমি কিছুই জানি না। যখন সার্ভিসটি একটিভেট করি, আমাকে এসএমএস’এ কিছুই জানানো হয়নি।

একটু আগে আমি আমার লিগ্যাল কাউনসিলরকে সিসি দিয়ে বিটিআরসি তে একটা মেইল লিখলাম। এই বিশাল প্রতারণা বন্ধ করা দরকার।

প্রিয় রবি, আমি অবশ্যই তোমার সার্ভিস ব্যবহার করব। কিন্তু এই প্রতারণা সহ্য করব না।

আমি নিজেকে স্মার্ট এবং টেকনোলজি’র মানুষ হিসেবে দাবী করি। আমার ক্ষেত্র যদি এই অবস্থা হয় তাহলে চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন দেখে গ্রাম থেকে যখন কোন নবীন ব্যবহারকারী এই সমস্যায় পড়বেন তখন কি হবে।

এখন প্রশ্ন মনে রবি প্রতিদিন এই প্রতারণা থেকে মোট কত আয় করে? আমার ফিনান্স জ্ঞান খারাপ। কেউ সাহায্য করবেন?