৯দিন পরে ভাত খেলাম আজ

by nirjhar

শিরোনাম দেখে অবার হওয়ার কিছু নেই। গত মাসে হঠাৎ আবিষ্কার করলাম আমার ওজন খুব বেড়ে গেছে। নিজের শরীরের ওজন বহন করতে পারছি না, হাপিয়ে যাচ্ছি। মহা ঝামেলার কথা! আমি এক রকম আতঙ্কিত হয়ে খুব ভোরে শিপলু ভাইকে (সাফকাত আহমেদ) ফোন করলাম। ঘুম ভাঙা গলায় শিপলু ভাই আমাকে আশ্বস্ত করলেন যে বুদ্ধি আছে। আর না করেই যাবে কোথায়! এসবের জন্য উনিই দায়ী!

Chocolate Shake

(এই ছবিটা শিপলু ভাইয়ের ফ্লিকার থেকে নিলাম। ওনার ফ্লিকারে শুধু খাবার দাবার)
শিপলু ভাইয়ের সাথে প্রথম দেখা ২০০৬ সালে। কিন্তু তার আগ থেকেই জানি ওনাকে। আমার বন্ধু রবিন অনেক বলেছে ওনার কথা। রবিনের ভাষায় ‘শিপলু ভাই খাই-দাই পাবলিক। ধর তোর মন খারাপ: শিপলু ভাই তোকে মন ভালো করার খাবার খাওয়াবে। কিংবা মন ভালো; তো খাওয়াবে অন্য ধরনের খাবার।’ তো এই হলেন আমার না দেখা শিপলু ভাই। ২০০৬ এর জুনে যখন পেইজফ্লেক্স এ জয়েন করলাম, তখন প্রথম দেখা হলো কলিগ হিসেবে। বিশাল চেহারা এবং শান্ত। সব সময় হাসিখুশি। দেখা হওয়ার প্রথম দিনেই উনি সবাইকে খাওয়ালেন।

আমরা যখন ঢাকায় অফিস নিলাম, তখন তার মুখে সব সময় খাওয়া দাওয়ার গল্প। এবং এক সময় আবিষ্কার করলাম খাওয়া দাওয়া বিষয়টা আসলে খুব খারাপ নয়। এই আবিষ্কারের আগে আমার চেহারাটা মোটামুটি শুকনাই ছিল। এ্রর পর শুরু হলো অঘটন। আস্তে আস্তে ফুলতে থাকলাম। ঢাকা শহরের এমন কোন রেস্টুরেন্ট নাই যেটায় যাওয়া হলো না। খা্ওয়া আর খাওয়া! এটা মোটামুটি মুটিয়ে যাওয়ার ইতিহাস; এখন বর্তমানটা শুরু করি!

শিপলু ভাই আমাকে যে জ্ঞান দিলেন তা হলো Glycemic index রিলেটেড। আমি এখানে লিংক টা দিচ্ছে উইকিপেডিয়া থেকে Glycemic_index. আমার জ্ঞানের সারাংশটা অনেক ভয়াবহ; আমার প্রিয় সব খাবার বাদ দিতে হলো। কারন সাদা ভাত, রুটি সবগুলারি ইন্ডেক্স মান অনেক বেশী। সুতরাং আমার ভাত ছাড়তে হইল। তো আমি কি খাওয়া শুরু করলাম?

অবশ্যই পোলাও নয়! (হা হা হা হা) আমি সব্জি খাওয়া শুরু করলাম। খারাপ নয়। এবং সাথে লাল আটার রুটি। বেশ মানিয়ে নিলাম। সব্জিতে কিন্তু আলো থাকা চলবে না। নো কার্বহাইড্রেট।

গতকাল ছিল টমি মিয়ার ফেস্টিভাল। গেলাম চীন মৈত্রি সম্মেলন সেন্টারে। ফাহমিদা আপার সাথে (ফাহমিদা নবী)। সেখানে গিয়ে খেলাম পোলাও। তেব মাত্র ছেট্ট এক চামচ। বাকীটুকু সব্জি এবং সালাদ আর সামান্য মাংস। ইচ্ছে করেই খেতে পারি নি। টমি মিয়ার খাবার জঘন্য। ওই লোক রান্না করা ছেড়ে দিলেই পারে। তবে অনেকদিন পরে ভাতের স্বাদ, খারাপ নয়। যারা যারা মোটা হচ্ছেন এই বুদ্ধি নিতে পারেন। যা করতে হবেঃ

১. নো মোর রেস্টুরেন্ট।

২. নো মোর সাদা ভাত এবং সাদা রুটি।

৩. নো মোর আলু।

এতে কিন্তু অনেক লাভ। যেমন রেস্টুরেন্ট এর মাসের বিলটা বাঁচবে। শরীরটা একটু ব্যালান্সড হবে। তাই শিপলু ভাই। ধন্যবাদ। শরীরটা এখন একটু ভালো।

You may also like

5 comments

Md Emran Hasan August 23, 2008 - 11:24 am

??? ?? ???? ????? ???? ???? ??? ??

Reply
emmy August 23, 2008 - 5:11 pm

koi kg komaches saita age bol…..ummmhmmmm….amar to mone hoi kau toke sukathe bolache…..she jai hok….din ki tik holo……notun jiboner

Reply
Flickr: Lotus Carroll September 2, 2008 - 10:45 am

Added this photo to their favorites

Reply
Flickr: Alli Worthington September 8, 2008 - 8:09 am

Added this photo to their favorites

Reply
Dipu Zaman November 22, 2010 - 8:32 pm

hmm vhai, apnar ei post ta valo laglo, cuz ami o diet korar plan kortesi, apnar formula ta kalke theke apply korbo

Reply

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.